বৃহস্পতিবার, ২৪ নভেম্বর ২০২২, ০৫:১৪ পূর্বাহ্ন বাংলা বাংলা English English
সংবাদ শিরোনাম
শাকিব খানকে ঘিরে আরো একটি গুঞ্জন হওয়ায় ভেসে বেড়াচ্ছে মিরসরাইয়ে ধর্ষণের অভিযোগে ৬০ বছরের বৃদ্ধ গ্রেফতার (ভিডিও সহ) জমিতে সেচের পানি না পেয়ে বিষপান করে মারা গেলেন দুই ভাই ২৫ মার্চকে আন্তর্জাতিক গণহত্যা দিবস হিসেবে স্বীকৃতির দাবি টিপু ও প্রীতি হত্যাকাণ্ডে যারাই জড়িত থাকুক তাদের কাউকে রেহাই দেওয়া হবে না : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে শনাক্ত ২২৩১ জন , আরও ৩ জনের মৃত্যু শামীম ওসমান তো নৌকার লোক, নৌকা ছাড়া যাবে কোথায় : আইভী দেশে আবারো করোনা সংক্রমণ বাড়ছে কক্সবাজারে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত চেয়ে হাইকোর্টে রিট সিকিমে ভয়াবহ তুষারপাত ,পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সেনাবাহিনীর উদ্ধার কাজ শুরু
সর্বশেষ সংবাদ
## কুষ্টিয়ায় ট্রাকচাপায় মোটরসাইকলে চালক নহিত ## ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্ত ১ লাখ ৯৪ হাজার ## পরমাণু বিজ্ঞানীদের হত্যাকারীরা অবশ্যই শাস্তি পাবে :ইরান ## নারায়ণগঞ্জে কেমিক্যাল গোডাউনে আগুন ## করোনার সঙ্গে নিউমোনয়িায় ভুগছনে লতা মঙ্গশেকর ## ঘূর্ণিঝড়ু ফিজিতে অবকাঠামো ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি ## গোবন্দিগঞ্জে হোটলে ব্যবসায়ীর মরদহে উদ্ধার ## করোনা সংক্রমণে রেড জোনে ঢাকা ও রাঙামাটি : স্বাস্থ্য অধদিফতর ## ভয়ঙ্কর ওমক্রিন: চরম সর্তকর্বাতা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ## কয়কে সপ্তাহরে মধ্যইে ওমক্রিনে আক্রান্ত হবে র্অধকে ইউরোপ: বশ্বি স্বাস্থ্য সংস্থা ## শামীম ওসমান মাঠে থাকলে আচরণ বিধি লঙ্ঘন হবে: আইভী ## বিশ্বে করোনা  আক্রান্ত আরও ২৭ লাখ, মৃত্যু সাড়ে ৭ হাজার ## কেন্দ্রিয় নেতাদের নিয়ে একাট্টার চেষ্টা আওয়ামী লীগে ## অর্ধেক আসনে যাত্রী বহনের নামে বাসভাড়া বৃদ্ধির পাঁয়তারা ## স্বতন্ত্র প্রার্থী হলেন অভিনেত্রী নাসরনি, চাইলেন দোয়া ## আড়াইহাজারে ট্রাক-লগেুনা সংর্ঘষে মারা গেছে ২ জন, আহত ১১ ## চিনিযুক্ত পানীয় পানে ক্যান্সাররে ঝুঁকি দিগুন হয়: গবষেণা ## টঙ্গীতে তুলার গুদামে আগুন ##
সিআরবিতে আধুনিক হাসপাতালের নামে শতবর্ষী গাছ কাটার বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছেন চট্টগ্রামের বিশিষ্টজনরা
/ ১০৫ জন পড়েছেন
প্রকাশিত সোমবার, ১২ জুলাই, ২০২১, ৫:৩৩ অপরাহ্ন

চট্টগ্রাম নগরের বুকে এক টুকরো সুবজে ঘেরা সিআরবিতে আধুনিক হাসপাতালের নামে শতবর্ষী গাছ কাটার বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছেন চট্টগ্রামের বিশিষ্টজনরা। তারা প্রস্তাবিত স্থানে হাসপাতালটি  নির্মাণ না করে উপযুক্ত স্থানে নির্মিত হওয়া বাঞ্ছনীয় বলে মন্তব্য করেছেন।

সোমবার (১২ জুলাই) চট্টগ্রামের ১৭ বিশিষ্টজন এ দাবির সাথে একমত প্রকাশ করে গণমাধ্যমে ইমেল-এ বিবৃতি পাঠান। বিবৃতি দাতারা হলেন— শহীদজায়া বেগম মুশতারী শফী, প্রফেসর ড. অনুপম সেন, প্রফেসর ড. সিকান্দার খান, দৈনিক আজাদী সম্পাদক এমএ মালেক, অ্যাডভোকেট রানা দাশগুপ্ত, প্রফেসর আবুল মনসুর, কবি ও সাংবাদিক আবুল মোমেন,

বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা. মাহফুজুর রহমান, প্রফেসর ডা. একিউএম সিরাজুল ইসলাম, প্রফেসর হরিশংকর জলদাস, অধ্যাপক ফেরদৌস আরা আলীম, ডা. চন্দন দাশ, নাট্যব্যক্তিত্ব আহমেদ ইকবাল হায়দার, প্রফেসর অলক রায়, স্থপতি  জেরিনা হোসেন, প্রকৌশলী দেলোয়ার মজুমদার, আবৃত্তিশিল্পী রাশেদ হাসান প্রমুখ।

আবৃত্তিশিল্পী রাশেদ হাসান স্বাক্ষরিত ওই বিবৃতিতে বলা হয়েছে— সম্প্রতি গণমাধ্যমের খবরের মাধ্যমে জানতে পারলাম চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী সিআরবি-সাতরাস্তার মোড় এলাকায় একটি বেসরকারি সংস্থার সঙ্গে বহুতল হাসপাতাল নির্মাণের চুক্তি সম্পাদন করেছে পূর্বাঞ্চল রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।

খবরটি চট্টগ্রামের আপামর মানুষকে অত্যন্ত ব্যথিত, উদ্বিগ্ন ও ক্ষুব্ধ করেছে। এর কারণ বহুবিধ। হাসপাতালে স্বভাবতই অসুস্থ মানুষদের সমাগম ঘটবে যা এলাকার পরিবেশকে প্রভাবিত করবে এবং এতে সাধারণের স্বাস্থ্য, প্রাতঃ ও বৈকালিক ভ্রমণ ঝুঁকি পূর্ণ হয়ে যাবে।

এতে প্রবীণ নাগরিকদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার অধিকার ক্ষুণ্ন হবে। আমাদের দেশে একজন রোগীকে ঘিরে হাসপাতালে বহুজনের আগমন স্বাভাবিক ঘটনা। এতে এলাকার নির্জনতা তথা স্বাভাবিক পরিবেশ ক্ষুণ্ন হবে।’বিবৃতিতে আরও বলা হয়, ‘দেশে হাসপাতালের বর্জ্য নিষ্কাশন/ব্যবস্থাপনার উপযুক্ত দক্ষতার অভাব রয়েছে।

এখানেও তার পুনরাবৃত্তিরই আশঙ্কা রয়েছে। কেননা শত প্রতিশ্রুতি ও আইনি ব্যবস্থা সত্ত্বেও এমন নজিরই দেখা যায়। এতে পুরো এলাকা ও আশপাশের অন্তত অর্ধশত খাদ্য বিপণি মারাত্মক ঝুঁকিতে পড়বে। এ প্রসঙ্গে আরও কয়েকটি বিষয় তুলে ধরা দরকার।

সিআরবি, সাত রাস্তার মোড় ও টাইগার পাস ঘিরে থাকা পাহাড় ও উপত্যকায় গাছপালা মণ্ডিত যে এলাকাটি রয়েছে তা চট্টগ্রামের ফুসফুস হিসেবেই গণ্য হয়। সমুদ্রবর্তী নদীবেষ্টিত এই পাহাড়ি নগর তার প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের জন্য যুগ যুগ ধরে দেশি-বিদেশি পর্যটক, ঐতিহাসিক, রাজনীতিক ও আগন্তুকদের মনোযোগ ও প্রশংসা কুড়িয়ে আসছে।

’‘এ আকর্ষণের অন্যতম কেন্দ্র আলোচ্য নৈসর্গিক সৌন্দর্যের অপরূপ এলাকাটি। কেবল প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের কারণেই নয় এটি ঐতিহাসিক কারণেও গুরুত্বপূর্ণ অঞ্চল। ঐ এলাকায় ১৯৩০ সালের ইতিহাস-প্রসিদ্ধ চট্টগ্রাম যুববিদ্রোহীরা অর্থসংগ্রহের জন্য অভিযান চালিয়েছিলেন,

তদুপরি সিআরবি ভবনটি দেশের ব্রিটিশ বা কলোনিয়াল স্থাপত্যের বিলীয়মান নিদর্শনের মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ একটি। এটি স্থাপত্যকলা ও ইতিহাসের ছাত্র-শিক্ষকের শিক্ষা ও গবেষণার একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান।

এসব বিবেচনা থেকেই এলাকাটিকে বাংলাদেশ সরকার সংবিধানের ২য় ভাগের ২৪ ধারা অনুযায়ী ঐতিহ্য ভবন ঘোষণা করে সংরক্ষিত এলাকা ঘোষণা করেছে।’বিশিষ্টজনরা বলেন, ‘এখানে বলা প্রয়োজন আমরা হাসপাতাল নির্মাণের বিরোধী নই,

কেবল একটি প্রাকৃতিক কারণে সংবেদনশীল ও ঐতিহাসিক গুরুত্বের স্থানে এ ধরনের একটি প্রতিষ্ঠান নির্মাণ অনুচিত বলে মনে করছি। চট্টগ্রামে আধুনিক হাসপাতালের প্রয়োজন আছে, তবে তা উপযুক্ত স্থানেই নির্মিত হওয়া বাঞ্ছনীয়।

এ নির্জন মনোরম এলাকাটিই চট্টগ্রামে বয়স্কদের প্রাতঃভ্রমণ, তরুণদের নাগরিক জীবনে হাঁপ ছাড়ার এবং সাংস্কৃতিক অঙ্গনের মানুষদের বাৎসরিক কয়েকটি উৎসব পালনের ভেন্যু হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে।

মনে রাখতে হবে অবকাঠামোগতভাবে দ্রুত বর্ধিষ্ণু এ নগরে রাজধানী ঢাকার মতো রমনা পার্ক নেই, নেই সোহরাওয়ার্দী উদ্যান, চন্দ্রিমা উদ্যান বা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকার মতো সবুজ-ঘেরা কোনো বড় অঞ্চল।

নগরের মধ্যে অবশিষ্ট রয়েছে মাত্র এ একটি এলাকা ‘তাই সব দিক বিবেচনা করে অবিলম্বে এই হঠকারী সিদ্ধান্ত ও উদ্যোগ থেকে সংশ্লিষ্টদের সরে আসার অনুরোধ জানাব আমরা। অন্যথায় নাগরিক সমাজ আরও বৃহত্তর আন্দোলন ও আইনি ব্যবস্থা গ্রহণে বাধ্য হবে বলেও বিবৃতির শেষ দিকে হুশিয়ারি করা হয়।

 

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো সংবাদ
লাইক পেইজ