মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:১৪ অপরাহ্ন বাংলা বাংলা English English
সংবাদ শিরোনাম
টইটং ইউপি নির্বাচন নৌকার প্রার্থীর বিজয় নিশ্চিত প্রচারনায় উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতারা পেকুয়ায় পাহাড় কেটে বনবিভাগের জায়গা জবর দখলে নিয়েছে একটি প্রভাবশালী চক্র কক্সবাজারের পেকুয়ার টইটং হিরাবুনিয়া পাড়া মৌলভী মশরফ আলী সড়কের বেহাল দশা পেকুয়ায় পুকুর থেকে অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার পেকুয়ায় সাংবাদিক পারিবারকে মামলা থেকে অব্যাহতির দাবীতে মানববন্ধন হবিগঞ্জের লাখাইয়ের হাওরে নৌকাভ্রমণে গিয়ে এক নববধূ গণধর্ষণের শিকার চট্টগ্রামে বিএনপি নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, ৭ জন আটক পেকুয়ায় ছুরিকাঘাতে স্কুল ছাত্রসহ আহত-২ পেকুয়ায় সাংবাদিক পরিবারের বিরুদ্ধে করা মামলা প্রত্যহারের দাবীতে মানববন্ধন চিত্রনায়িকা পরীমনিকে তিন বিবেচনায় জামিন দিয়েছেন আদালত
এই মাত্র পওয়া
Wellcome to our website...
পেকুয়ায় সাবেক ছাত্রলীগ নেতার বাড়িতে সন্ত্রাসী হামলা ও ভাংচুর
/ ৩৯ জন পড়েছেন
প্রকাশিত সোমবার, ২৩ আগস্ট, ২০২১, ৪:২৭ পূর্বাহ্ন

কক্সবাজারের পেকুয়ায় সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আমির খসরু চৌধুরী রাসেলের বাড়িতে হামলা ও ভাংচুর চালিয়েছে একদল দুর্বৃত্ত। রবিবার (২২ আগষ্ট) সকাল ৭টার দিকে উপজেলার সদর ইউনিয়নের পশ্চিম গোঁয়াখালী মাতবর পাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

বীর মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ আফতাব উদ্দিন চৌধুরীর ছেলে জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি আমির আশরাফ চৌধুরী রুবেল,মহিলা লীগ নেত্রী জান্নাতুল তাহমিনা জন্নাত শিমু ও পেকুয়া উপজেলা কৃষক লীগের যুগ্ন আহ্বায়ক আমিরুল খোরশেদ চৌধুরীর ভাই বীর মুক্তিযোদ্ধা ডাক্তার আফতাব উদ্দিন চৌধুরীর ছেলে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আমির খসরু চৌধুরী রাসেল বলেন, পশ্চিম গোঁয়াখালী মাতবর পাড়ায় আরএস ২৩০, বিএস ৯১৮ ও ৯১৯ খতিয়ান থেকে খরিদ সূত্রে প্রাপ্ত জমি জমাভাগ খতিয়ান সৃজিত করে ভোগদখল করে আসছি। যার দলিল নং ৯৫১।

ইতিমধ্যে ওই জায়গা জবর দখল করার চক্রান্ত করে আসছিল মৃত জামাল হোসেনের ছেলে ওসমাণ, মৃত আনু মিয়ার ছেলে সরওয়ার ও মৃত সিরাজ আহমদের ছেলে আবু ছৈয়দসহ আরো বেশ কয়েকজন। জবর দখল চেষ্টার ধারাবাহিকতায় তাদের নেতৃত্বে জহিরুল আলম, বাদশা, বেলাল, জনু, জালাল আহমদ ও নুরুল আলমসহ সংঘবদ্ধ আরো বেশ কয়েকজন সন্ত্রাসী ভোরে আমার ভোগদখলীয় জমি জবর দখল করে ধান রোপন করার চেষ্টা করে। এক পর্যায়ে তারা সংঘবদ্ধ হয়ে আমার বাড়িতে এসে হামলা ও ভাংচুর চালিয়ে ব্যাপক ক্ষতি করে।

চলে যাওয়ার সময় এ নিয়ে বাড়াবাড়ি করলে প্রাণে হত্যা করবে বলে হুমকি দিয়ে চলে যায়। তিনি আরো বলেন, এ ঘটনার পর পেকুয়া থানার সহকারী পুলিশ পরিদর্শক (এস আই) মিন্নতসহ তার সঙ্গীয় পুলিশ দল নিয়ে সরেজমিন গিয়ে আমাদেরকে হয়রানি শুরু করে। তাদের এমন আচরণে আমরা হতবাক হয়ে পড়ি। বিষয়টি আমি জেলার পুলিশ সুপার মহোদয়কে অবগত করেছি।

উপজেলা কৃষকলীগের যুগ্ম আহবায়ক আমিরুল খোরশেদ বলেন, চিহ্নিত ভুমি দস্যুদের এহেন আচরণে হতবিহ্বল হয়ে পড়েছি। স্থানীয় প্রশাসনের কাছে অনুরোধ হামলাকারীদের দ্রুত আইনের আওতায় আনা হউক। যায়গা জমির বিষয় থাকলে আদালতের মাধ্যমে তারা প্রমাণ দিয়ে রায় নিয়ে আসলে জায়গা ছেড়ে দেবে আমার ভাই।

মহিলা নেত্রী জান্নাতুল তাহমিনা শিমু বলেন, সন্ত্রাসীদের এমন বর্বর হামলার প্রতিবাদের ভাষা হারিয়ে ফেলেছি। জমির পাওনা হলে তা আদালতের মাধ্যমে রায় নিয়ে আসুক আমার ভাই জমি আপনা আপনি ছেড়ে দেবে। তবে এ জমির মালিক আমার ওয়ারেশী ও খরিদসুত্রে। এ বিষয়ে কোন দ্বিধা দন্ধ নেই। এবিষয়ে জানতে চাইলে সহকারী পুলিশ পরিদর্শক (এস আই) মিন্নত বলেন, জমি জবর দখল চেষ্টার বিষয়ে নিয়ে সংঘর্ষের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনি।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
লাইক পেইজ