মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ০৩:১৯ অপরাহ্ন বাংলা বাংলা English English
সংবাদ শিরোনাম
শাকিব খানকে ঘিরে আরো একটি গুঞ্জন হওয়ায় ভেসে বেড়াচ্ছে মিরসরাইয়ে ধর্ষণের অভিযোগে ৬০ বছরের বৃদ্ধ গ্রেফতার (ভিডিও সহ) জমিতে সেচের পানি না পেয়ে বিষপান করে মারা গেলেন দুই ভাই ২৫ মার্চকে আন্তর্জাতিক গণহত্যা দিবস হিসেবে স্বীকৃতির দাবি টিপু ও প্রীতি হত্যাকাণ্ডে যারাই জড়িত থাকুক তাদের কাউকে রেহাই দেওয়া হবে না : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে শনাক্ত ২২৩১ জন , আরও ৩ জনের মৃত্যু শামীম ওসমান তো নৌকার লোক, নৌকা ছাড়া যাবে কোথায় : আইভী দেশে আবারো করোনা সংক্রমণ বাড়ছে কক্সবাজারে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত চেয়ে হাইকোর্টে রিট সিকিমে ভয়াবহ তুষারপাত ,পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সেনাবাহিনীর উদ্ধার কাজ শুরু
সর্বশেষ সংবাদ
## কুষ্টিয়ায় ট্রাকচাপায় মোটরসাইকলে চালক নহিত ## ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্ত ১ লাখ ৯৪ হাজার ## পরমাণু বিজ্ঞানীদের হত্যাকারীরা অবশ্যই শাস্তি পাবে :ইরান ## নারায়ণগঞ্জে কেমিক্যাল গোডাউনে আগুন ## করোনার সঙ্গে নিউমোনয়িায় ভুগছনে লতা মঙ্গশেকর ## ঘূর্ণিঝড়ু ফিজিতে অবকাঠামো ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি ## গোবন্দিগঞ্জে হোটলে ব্যবসায়ীর মরদহে উদ্ধার ## করোনা সংক্রমণে রেড জোনে ঢাকা ও রাঙামাটি : স্বাস্থ্য অধদিফতর ## ভয়ঙ্কর ওমক্রিন: চরম সর্তকর্বাতা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ## কয়কে সপ্তাহরে মধ্যইে ওমক্রিনে আক্রান্ত হবে র্অধকে ইউরোপ: বশ্বি স্বাস্থ্য সংস্থা ## শামীম ওসমান মাঠে থাকলে আচরণ বিধি লঙ্ঘন হবে: আইভী ## বিশ্বে করোনা  আক্রান্ত আরও ২৭ লাখ, মৃত্যু সাড়ে ৭ হাজার ## কেন্দ্রিয় নেতাদের নিয়ে একাট্টার চেষ্টা আওয়ামী লীগে ## অর্ধেক আসনে যাত্রী বহনের নামে বাসভাড়া বৃদ্ধির পাঁয়তারা ## স্বতন্ত্র প্রার্থী হলেন অভিনেত্রী নাসরনি, চাইলেন দোয়া ## আড়াইহাজারে ট্রাক-লগেুনা সংর্ঘষে মারা গেছে ২ জন, আহত ১১ ## চিনিযুক্ত পানীয় পানে ক্যান্সাররে ঝুঁকি দিগুন হয়: গবষেণা ## টঙ্গীতে তুলার গুদামে আগুন ##
প্রথম বিয়ের পর দুই জান্নাতকেই চুক্তিভিত্তিক বিয়ে করেছিলেন মামুনুল
/ ২৩২ জন পড়েছেন
প্রকাশিত মঙ্গলবার, ২০ এপ্রিল, ২০২১, ৬:১৫ অপরাহ্ন

হেফাজত ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা মহানগরীর সাধারণ সম্পাদক মামুনুল হককে সাত দিনের রিমান্ডে পেয়েছে পুলিশ। ডিবি কার্যালয়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। জিজ্ঞাসাবাদের প্রথম দিনের মুখ খুলতে শুরু করেছেন মামুনুল হক।

প্রথম বিয়ের পর দুই জান্নাতকেই কন্ট্রাকচ্যুয়াল (চুক্তিভিত্তিক) বিয়ে করেছিলেন মামুনুল। এসব বিয়ের সময় কারা সাক্ষী ছিলেন তাদেরও জিজ্ঞাসাবাদের পরিকল্পনা করছেন তদন্ত সংশ্লিষ্টরা। ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিএমপি) যুগ্ম কমিশনার মাহবুব আলম এই তথ‌্য নিশ্চিত করেছেন।

অর্থনৈতিক নিশ্চয়তা দিতেই দুই ডিভোর্সি নারীকে বিয়ে করেছিলেন বলে তদন্তসংশ্লিষ্টদের কাছে দাবি করেন মামুনুল। বলেছেন, রিসোর্টকাণ্ডে শুরুতেই স্বীকার করলে প্রথম স্ত্রী আমেনা তৈয়বা বড় ধরনের কাণ্ড ঘটিয়ে ফেলতেন বলে তার ধারণা ছিল।

এ কারণে তৎক্ষণাৎ স্বীকার করেননি। গ্রেফতারের পর জিজ্ঞাসাবাদের প্রথম দিনই অন্য গুরুত্বপূর্ণ অনেক তথ্যের সঙ্গে এসব কথা বলেছেন মামুনুল। একই সঙ্গে রিমান্ডে তাকে সহিংসতায় উসকানি দেওয়ার অভিযোগ সম্পর্কে জিজ্ঞাসাবাদের পাশাপাশি অন্যান্য বিষয়েও ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে বলে জানা গেছে।

সোমবার আদালতের নির্দেশে মামুনুল হককে সাত দিনের রিমান্ডে নেয় পুলিশ। পুলিশের তেজগাঁও বিভাগের উপকমিশনার হারুন অর রশিদ বলেন, মামুনুলকে নিরাপত্তার স্বার্থেই কেবল গোয়েন্দা কার্যালয়ে রাখা হয়েছে। সেখানে আমার অফিসাররা গিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করছেন।

মঙ্গলবার (আজ) আমি নিজেই জিজ্ঞাসাবাদে থাকব। তিনি আরো বলেন, এখন পর্যন্ত মামুনুল প্রথম বিয়ে ছাড়া বাকি দুই বিয়ের স্বপক্ষে কোনো প্রমাণ দেখাতে পারেননি। এমনকি বিয়ের স্বাক্ষীদের নাম প্রকাশের ব্যাপারেও গড়িমসি করছেন।

দ্বিতীয় জান্নাতের ভাই শাহজাহানের জিডি নিয়ে আমরা কাজ করছি। ডিএমপির যুগ্ম কমিশনার আরও বলেন,  ‘যে দুই নারীর নাম বেরিয়ে আসছে, তাদের সঙ্গে মামুনুল হক দীর্ঘদিন ধরে স্বামী-স্ত্রী পরিচয় দিয়ে বসবাস করে আসছেন।

একইসঙ্গে তার স্ত্রী দাবিকারী এক জান্নাতের নিকটাত্মীয়ের করা জিডির সূত্র ধরে তার কাছে জানতে চাইলে মামুনুল এ সময় মুখ বুজে থাকেন। কোনো উত্তর দেননি। পাশাপাশি ওই দুই নারী ডিভোর্সি হওয়ায় তাদের দিকে মানবিকভাবে তিনি সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন বলেও জানিয়েছেন মামুনুল হক।

এরমধ্যে একজনকে মোহাম্মদপুরের একটি মাদ্রাসায় চাকরিও দিয়েছেন।’পুলিশের এই কর্মকর্তা বলেন, ‘কাগজপত্র না থাকলে কিভাবে বিয়ে হলো? এমন প্রশ্নে গোয়েন্দাদের মামুনুল হক জানিয়েছেন, তাদের সঙ্গে দীর্ঘদিন বসবাস করলেও বিয়ের কাবিন করেননি।

আর এ কারণেই কোনো কাবিননামাও নেই। তাদের দিকে মানবিক দৃষ্টি দিয়েছিলেন তিনি। ওই নারীদের  আর্থিক সচ্ছলতা ফিরিয়ে আনাই ছিল তার প্রধান উদ্দেশ্য। সেভাবেই তাদের সাপোর্ট করে আসছিলেন তিনি।’

মাহবুব আলম  বলেন, ‘ইসলাম তো দাঙ্গা, সংঘাত, সহিংসতা ও নাশকতার কথা বলেনি, তাহলে কেন হেফাজতে ইসলাম এগুলো করছে? এমন প্রশ্নে মামুনুল হক বলেন, ‘সংগঠনের নেতা হিসেবে আমার ওপর দায় আসে।

হেফাজত ছাড়া অন্য কোনো সংগঠনও সংঘাতে জড়ায়। আমাদের বেলায় তেমনটি হতে পারে।’ তবে, তিনি এর সঙ্গে সরাসরি জড়িত কি না, সে বিষয়ে মুখ খোলেননি।’

‘২০১৩ সালে হেফাজত ইসলাম তাণ্ডব চালিয়ে পবিত্র কোরআন শরিফে আগুন ধরিয়ে দেওয়া ছাড়াও জানমালের ক্ষতি করে কেন?  এমন প্রশ্নের জবাবে মামুনুল হক কোনো উত্তর না দিয়ে এড়িয়ে যান।

একইসঙ্গে তাকে হেফাজতে ইসলামের অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি কোনো উত্তর দেননি। তবে, মোহাম্মদপুর থানার মামলার বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদে তিনি বলেন,

যখন তাবলিগ জামাতের দুটি গ্রুপ  সাদ ও জুবায়ের পন্থী মারামারি হয়েছিল, তিনি সেদিন জুবায়েরপন্থী ছিলেন। তবে এ ঘটনায় কোনো হতাহত হয়েছিল কি না তা তার জানা নেই বলে দাবি করেন মামুনুল হক।

 

 

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো সংবাদ
লাইক পেইজ