সোমবার, ২১ নভেম্বর ২০২২, ০৫:৩৭ পূর্বাহ্ন বাংলা বাংলা English English
সংবাদ শিরোনাম
শাকিব খানকে ঘিরে আরো একটি গুঞ্জন হওয়ায় ভেসে বেড়াচ্ছে মিরসরাইয়ে ধর্ষণের অভিযোগে ৬০ বছরের বৃদ্ধ গ্রেফতার (ভিডিও সহ) জমিতে সেচের পানি না পেয়ে বিষপান করে মারা গেলেন দুই ভাই ২৫ মার্চকে আন্তর্জাতিক গণহত্যা দিবস হিসেবে স্বীকৃতির দাবি টিপু ও প্রীতি হত্যাকাণ্ডে যারাই জড়িত থাকুক তাদের কাউকে রেহাই দেওয়া হবে না : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে শনাক্ত ২২৩১ জন , আরও ৩ জনের মৃত্যু শামীম ওসমান তো নৌকার লোক, নৌকা ছাড়া যাবে কোথায় : আইভী দেশে আবারো করোনা সংক্রমণ বাড়ছে কক্সবাজারে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত চেয়ে হাইকোর্টে রিট সিকিমে ভয়াবহ তুষারপাত ,পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সেনাবাহিনীর উদ্ধার কাজ শুরু
সর্বশেষ সংবাদ
## কুষ্টিয়ায় ট্রাকচাপায় মোটরসাইকলে চালক নহিত ## ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্ত ১ লাখ ৯৪ হাজার ## পরমাণু বিজ্ঞানীদের হত্যাকারীরা অবশ্যই শাস্তি পাবে :ইরান ## নারায়ণগঞ্জে কেমিক্যাল গোডাউনে আগুন ## করোনার সঙ্গে নিউমোনয়িায় ভুগছনে লতা মঙ্গশেকর ## ঘূর্ণিঝড়ু ফিজিতে অবকাঠামো ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি ## গোবন্দিগঞ্জে হোটলে ব্যবসায়ীর মরদহে উদ্ধার ## করোনা সংক্রমণে রেড জোনে ঢাকা ও রাঙামাটি : স্বাস্থ্য অধদিফতর ## ভয়ঙ্কর ওমক্রিন: চরম সর্তকর্বাতা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ## কয়কে সপ্তাহরে মধ্যইে ওমক্রিনে আক্রান্ত হবে র্অধকে ইউরোপ: বশ্বি স্বাস্থ্য সংস্থা ## শামীম ওসমান মাঠে থাকলে আচরণ বিধি লঙ্ঘন হবে: আইভী ## বিশ্বে করোনা  আক্রান্ত আরও ২৭ লাখ, মৃত্যু সাড়ে ৭ হাজার ## কেন্দ্রিয় নেতাদের নিয়ে একাট্টার চেষ্টা আওয়ামী লীগে ## অর্ধেক আসনে যাত্রী বহনের নামে বাসভাড়া বৃদ্ধির পাঁয়তারা ## স্বতন্ত্র প্রার্থী হলেন অভিনেত্রী নাসরনি, চাইলেন দোয়া ## আড়াইহাজারে ট্রাক-লগেুনা সংর্ঘষে মারা গেছে ২ জন, আহত ১১ ## চিনিযুক্ত পানীয় পানে ক্যান্সাররে ঝুঁকি দিগুন হয়: গবষেণা ## টঙ্গীতে তুলার গুদামে আগুন ##
কারোনা ভাইরাস সংক্রমণের ক্ষেত্রে বন্দর নগর চট্টগ্রাম আছে এই মুহূর্তে সর্বোচ্চ বেশি ঝুঁকিতে : সিভিল সার্জন
/ ২৯৮ জন পড়েছেন
প্রকাশিত সোমবার, ১৬ মার্চ, ২০২০, ৩:২৯ অপরাহ্ন

কারোনা ভাইরাস সংক্রমণের ক্ষেত্রে বন্দর নগর চট্টগ্রাম জেলা এই মুহূর্তে সর্বোচ্চ বেশি ঝুঁকিতে আছে বলে জানিয়েছেন জেলা সিভিল সার্জন শেখ ফজলে রাব্বী মিয়া।

তিনি বলেছেন, ‘চট্টগ্রাম জেলা এই মুহূর্তে সর্বোচ্চ ঝুঁকিতে আছে। কারণ আমাদের দুটি বন্দর, একটি বিমানবন্দর ও অপরটি সমুদ্র বন্দর। দু’টি বন্দর দিয়েই সংক্রমণের সম্ভাবনা রয়েছে। তাই এন্ট্রি পয়েন্টেই যদি সংক্রমণকারীকে ঠেকিয়ে দেয়া না যায়, তাহলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখা যাবে না।’ ইতালিফেরত প্রবাসীদের কারণে চট্টগ্রামে ঝুঁকির পরিমাণ বেড়ে যাচ্ছে বলেও জানান তিনি।

সোমবার (১৬ মার্চ) বিকেল ৪টায় চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন কার্যালয়ে ‌‘হাম-রুবেলা টিকাদান ক্যাম্পেইন-২০২০’ উপলক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ সব কথা বলেন।

সিভিল সার্জন তিনি বলেন, ‘আমাদের শাহ আমানত বিমানবন্দরে ইতিমধ্যেই থার্মাল স্ক্যানার বসানো হয়েছে। এছাড়া সমুদ্রবন্দরে হ্যান্ড থার্মাল স্ক্যানারের মাধ্যমে পরীক্ষা করা হচ্ছে। করোনাদুর্গত এলাকার মধ্যে ইতালি থেকেই সবচেয়ে বেশি প্রবাসীরা ফিরছেন। সাধারণত একজন করোনা আক্রান্ত রোগীর উপসর্গ দেখা দিতে ২ থেকে ১৪ দিন সময় লাগে। তাই বিমানবন্দরে স্ক্রিনিংয়ে করোনায় সংক্রমিত ব্যক্তি বেরিয়েও যেতে পারে। এ সব কারণে আমরা বিমানবন্দর থেকে প্রতি মুহূর্তে আপডেট তথ্য নিচ্ছি এবং প্রবাসীদের হোম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করতে কাজ করছি।’

ফজলে রাব্বী মিয়া, ‘এছাড়া করোনাদুর্গত এলাকা থেকে আগত প্রবাসীদের কারও যদি শরীরে তাপমাত্রা বেশি পাওয়া যায় তাহলে সঙ্গে সঙ্গেই বিমানবন্দর থেকে তাকে হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে।’

হোম কোয়ারেন্টাইনের বিষয়ে সিভিল সার্জন বলেন, ‘চট্টগ্রামের হোম কোয়ারেন্টাইন তদারকিতে একটি শক্তিশালী কমিটি কাজ করছে। এতে জেলা প্রশাসক, স্বাস্থ্য বিভাগ ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীও আছে। বিমানবন্দর থেকে প্রবাসফেরত যাত্রীদের তালিকা স্থানীয় প্রশাসন ও ডিজিএফআইকে সরবরাহ করা হচ্ছে। তারাই হোম কোয়ারেন্টাইনের বিষয়টি তদারকি করছেন।’

তিনি বলেন, ‘হোম কোয়ারেন্টাইনের ক্ষেত্রে পরিবারকে বেশি সচেতন হতে হবে। প্রবাস থেকে আগত সদস্যকে একটি আলাদা ঘরে ১৪ দিনে জন্য আলাদা করে রাখতে হবে। বাড়ির পাশের মানুষদের বলব, আপনারা প্রবাসীদের শত্রু ভাববেন না। তারা তো দেশের জন্যই অর্থ উপার্জন করেন। তারা মূলত, একটি বৈশ্বিক পরিস্থিতির শিকার। তাই তাদের সর্বাত্মকভাবে সহযোগিতা করুন। প্রয়োজনে তাদের পরিবারের সদস্যদের বাজার-সদাই করে দিন। এ ক্ষেত্রে যোগাযোগ হবে অবশ্যই মোবাইলে। কোনোভাবেই যেন তারা রেসিজমের (বর্ণবাদ) শিকার না হন।’

চট্টগ্রামে গত ২৪ ঘণ্টার পরিস্থিতি তুলে ধরে শেখ ফজলে রাব্বী মিয়া বলেন, ‘গতকাল সকাল ৮টা থেকে আজ সকাল ৮ টা পর্যন্ত ৮ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া এর আগে চট্টগ্রামে হোম কোয়ারেন্টাইনে ছিল ২১ জন। কোনো প্রবাসী যদি হোম কোয়ারেন্টাইন না মানেন তবে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হবে।’

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে সন্দেহভাজন ৬ শিক্ষার্থী করোনামুক্ত জানিয়ে সিভিল সার্জন বলেন, ‘সেই ৬ যুবক করোনাভাইরাসমুক্ত। আমরা পরীক্ষা করে কোনো আলামত পাইনি। তাদের মধ্যে ইতালিফেরত যুবক ছাড়া অন্য ৫ জনকে ১৪ দিনের জন্য হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। আর ইতালি থেকে আসা যুবকের ১৩ দিন অতিবাহিত হওয়ায় তাকে ১ দিন কোয়ারেন্টাইনে থাকা লাগবে।’

জাগো নিউজ।

 

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো সংবাদ
লাইক পেইজ