মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:৫৮ অপরাহ্ন বাংলা বাংলা English English
সংবাদ শিরোনাম
টইটং ইউপি নির্বাচন নৌকার প্রার্থীর বিজয় নিশ্চিত প্রচারনায় উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতারা পেকুয়ায় পাহাড় কেটে বনবিভাগের জায়গা জবর দখলে নিয়েছে একটি প্রভাবশালী চক্র কক্সবাজারের পেকুয়ার টইটং হিরাবুনিয়া পাড়া মৌলভী মশরফ আলী সড়কের বেহাল দশা পেকুয়ায় পুকুর থেকে অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার পেকুয়ায় সাংবাদিক পারিবারকে মামলা থেকে অব্যাহতির দাবীতে মানববন্ধন হবিগঞ্জের লাখাইয়ের হাওরে নৌকাভ্রমণে গিয়ে এক নববধূ গণধর্ষণের শিকার চট্টগ্রামে বিএনপি নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, ৭ জন আটক পেকুয়ায় ছুরিকাঘাতে স্কুল ছাত্রসহ আহত-২ পেকুয়ায় সাংবাদিক পরিবারের বিরুদ্ধে করা মামলা প্রত্যহারের দাবীতে মানববন্ধন চিত্রনায়িকা পরীমনিকে তিন বিবেচনায় জামিন দিয়েছেন আদালত
এই মাত্র পওয়া
Wellcome to our website...
কারোনা ভাইরাস সংক্রমণের ক্ষেত্রে বন্দর নগর চট্টগ্রাম আছে এই মুহূর্তে সর্বোচ্চ বেশি ঝুঁকিতে : সিভিল সার্জন
/ ২২৬ জন পড়েছেন
প্রকাশিত সোমবার, ১৬ মার্চ, ২০২০, ৩:২৯ অপরাহ্ন

কারোনা ভাইরাস সংক্রমণের ক্ষেত্রে বন্দর নগর চট্টগ্রাম জেলা এই মুহূর্তে সর্বোচ্চ বেশি ঝুঁকিতে আছে বলে জানিয়েছেন জেলা সিভিল সার্জন শেখ ফজলে রাব্বী মিয়া।

তিনি বলেছেন, ‘চট্টগ্রাম জেলা এই মুহূর্তে সর্বোচ্চ ঝুঁকিতে আছে। কারণ আমাদের দুটি বন্দর, একটি বিমানবন্দর ও অপরটি সমুদ্র বন্দর। দু’টি বন্দর দিয়েই সংক্রমণের সম্ভাবনা রয়েছে। তাই এন্ট্রি পয়েন্টেই যদি সংক্রমণকারীকে ঠেকিয়ে দেয়া না যায়, তাহলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখা যাবে না।’ ইতালিফেরত প্রবাসীদের কারণে চট্টগ্রামে ঝুঁকির পরিমাণ বেড়ে যাচ্ছে বলেও জানান তিনি।

সোমবার (১৬ মার্চ) বিকেল ৪টায় চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন কার্যালয়ে ‌‘হাম-রুবেলা টিকাদান ক্যাম্পেইন-২০২০’ উপলক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ সব কথা বলেন।

সিভিল সার্জন তিনি বলেন, ‘আমাদের শাহ আমানত বিমানবন্দরে ইতিমধ্যেই থার্মাল স্ক্যানার বসানো হয়েছে। এছাড়া সমুদ্রবন্দরে হ্যান্ড থার্মাল স্ক্যানারের মাধ্যমে পরীক্ষা করা হচ্ছে। করোনাদুর্গত এলাকার মধ্যে ইতালি থেকেই সবচেয়ে বেশি প্রবাসীরা ফিরছেন। সাধারণত একজন করোনা আক্রান্ত রোগীর উপসর্গ দেখা দিতে ২ থেকে ১৪ দিন সময় লাগে। তাই বিমানবন্দরে স্ক্রিনিংয়ে করোনায় সংক্রমিত ব্যক্তি বেরিয়েও যেতে পারে। এ সব কারণে আমরা বিমানবন্দর থেকে প্রতি মুহূর্তে আপডেট তথ্য নিচ্ছি এবং প্রবাসীদের হোম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করতে কাজ করছি।’

ফজলে রাব্বী মিয়া, ‘এছাড়া করোনাদুর্গত এলাকা থেকে আগত প্রবাসীদের কারও যদি শরীরে তাপমাত্রা বেশি পাওয়া যায় তাহলে সঙ্গে সঙ্গেই বিমানবন্দর থেকে তাকে হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে।’

হোম কোয়ারেন্টাইনের বিষয়ে সিভিল সার্জন বলেন, ‘চট্টগ্রামের হোম কোয়ারেন্টাইন তদারকিতে একটি শক্তিশালী কমিটি কাজ করছে। এতে জেলা প্রশাসক, স্বাস্থ্য বিভাগ ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীও আছে। বিমানবন্দর থেকে প্রবাসফেরত যাত্রীদের তালিকা স্থানীয় প্রশাসন ও ডিজিএফআইকে সরবরাহ করা হচ্ছে। তারাই হোম কোয়ারেন্টাইনের বিষয়টি তদারকি করছেন।’

তিনি বলেন, ‘হোম কোয়ারেন্টাইনের ক্ষেত্রে পরিবারকে বেশি সচেতন হতে হবে। প্রবাস থেকে আগত সদস্যকে একটি আলাদা ঘরে ১৪ দিনে জন্য আলাদা করে রাখতে হবে। বাড়ির পাশের মানুষদের বলব, আপনারা প্রবাসীদের শত্রু ভাববেন না। তারা তো দেশের জন্যই অর্থ উপার্জন করেন। তারা মূলত, একটি বৈশ্বিক পরিস্থিতির শিকার। তাই তাদের সর্বাত্মকভাবে সহযোগিতা করুন। প্রয়োজনে তাদের পরিবারের সদস্যদের বাজার-সদাই করে দিন। এ ক্ষেত্রে যোগাযোগ হবে অবশ্যই মোবাইলে। কোনোভাবেই যেন তারা রেসিজমের (বর্ণবাদ) শিকার না হন।’

চট্টগ্রামে গত ২৪ ঘণ্টার পরিস্থিতি তুলে ধরে শেখ ফজলে রাব্বী মিয়া বলেন, ‘গতকাল সকাল ৮টা থেকে আজ সকাল ৮ টা পর্যন্ত ৮ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া এর আগে চট্টগ্রামে হোম কোয়ারেন্টাইনে ছিল ২১ জন। কোনো প্রবাসী যদি হোম কোয়ারেন্টাইন না মানেন তবে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হবে।’

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে সন্দেহভাজন ৬ শিক্ষার্থী করোনামুক্ত জানিয়ে সিভিল সার্জন বলেন, ‘সেই ৬ যুবক করোনাভাইরাসমুক্ত। আমরা পরীক্ষা করে কোনো আলামত পাইনি। তাদের মধ্যে ইতালিফেরত যুবক ছাড়া অন্য ৫ জনকে ১৪ দিনের জন্য হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। আর ইতালি থেকে আসা যুবকের ১৩ দিন অতিবাহিত হওয়ায় তাকে ১ দিন কোয়ারেন্টাইনে থাকা লাগবে।’

জাগো নিউজ।

 

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
লাইক পেইজ